র‍্যাম কি ? র‍্যাম কিভাবে কাজ করে ?

আসসালাম ওয়ালাইকুম আশা করছি আপনারা ভালো আছেন আজকের এই ভিডিও তে আমি কম্পিউটারের র‍্যাম নিয়ে কথা বলবো।
টুইস্টি টি পড়ার পরে অবশ্যই আপনারা এই র‍্যাম টি কিভাবে কাজ করে বা এই ram এর ইতিহাস জানতে পারবেন।
র‍্যামকে আমরা প্রাইমারি মেমোরি বা মেমোরি storage বলে থাকি সাধারণত আমরা র‍্যাম motherboard এ বসিয়ে থাকি।
আমরা যখন motherboard এ বসিয়ে থাকি তখন কিন্তু আমাদের দুটি লাইনে বসাতে হয় মাঝখানে একটি খাঁজকাটা অংশতাকে।

আপনারা দেখতে পেরেছেন এই গুলো একশো আটষট্টি পিন একশো চুরাশি পিন দুইশো চল্লিশ পিন দুশো অষ্টআশি পিনের হয়ে থাকে।
সেগুলো নিয়ে অবশ্যই আলোচনা করার চেষ্টা করব।
সাধারণত আমাদের কাছে যে মাদার বোর্ড গুলো সেখানে দুই ও চার স্লট রয়েছে ram এর জন্য। কিন্তু average motherboard গুলোতে ram এর জন্য দুটি স্লট বরাদ্দ থাকে।
যে কোন প্রোগ্রাম রান করতে র‍্যামের অবশ্যই প্রয়োজন হবে।
যেকোনো তথ্য সর জমা থাকে drive এ এরপরেই তথ্য ram এ জমা হয় এরপর CPU access পায় প্রোগ্রাম টি রান করার জন্য,র‍্যাম যদি কম হয় তবে CPU কে অপেক্ষা করতে হয় ডাটা এর জন্য।
এমনকি HDD থেকে যে তথ্য বা data র‍্যামে যেতে থাকে রাম কম থাকার কারণে তা ব্যাক করে।
Data store করার জন্য রামের ইলেকট্রিক্যাল পাওয়ার প্রয়োজন হয়।
D-Ram dynamic র‍্যামের সম্পর্কে আপনাদেরকে জানাচ্ছি যেটি একদম ram এর প্রথম দিকে ছিল যেখানে capacitor গুলো থাকে এবং এই capacitor store করে electricity এবং এই capacitor গুলো বার বার refresh করতে হয় কারণ capacitor বেশিক্ষণ ইলেকট্রিসিটি store করে রাখতে পারে না। আপনাদেরকে জানানোর চেষ্টা করবো D-Ram এবং SD-Ram এর মধ্যে পার্থক্য D-Ram গুলো সব সময়ই তাদের refresh করতে হয় ইলেকট্রিসিটি কিন্তু এই sd-ram সবসময় Synchronised হয় with সিস্টেম ক্লক এর সাথে সবসময় Synchronised হতে থাকে সেই কারণে এটি বার বার refresh করার প্রয়োজন হয় না সেই কারণে এখন sd-ram গুলো ব্যবহার করা হয়।


চৌষট্টি বিট যদি হয় তাহলে একটি ক্লক সাইকেলে চৌষট্টি বিট ডাটা ট্রান্সফার হবে যদি বত্তিরিশ হয় তাহলে একটি ব্লক সাইকেলে একসাথে বত্রিশ বিট বাটা ট্রান্সফার হবে।


আপনারা যারা কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ার আছেন তারা বুঝতে পারেন।
এখানে আপনারা পিসির পাশে যে একশো দেখছেন সে একশোর সাতে আট গুণ করতে হবে কেন গুন করতে হবে কারণ আমি ডিমে এই কথাটাই বলেছি।

আপনারা এর পরে জানতে পারবেন পিসি one three three এবং একইভাবে পিসি one three three র সাথে যদি আট মাল্টিপল করেন তাহলে এক হাজার ছেষট্টি MB পার সেকেন্ড হচ্ছে।


এরপরেই আরো আধুনিকতার ছোঁয়া আসে এবং সেখানে আছে DDR অর্থাৎ ডবল ডাটা

আপনারা যদি ddr এবং non ddr এর মধ্যে পার্থক্য করেন তাহলে non ddr এর চেয়ে ddr double speed provide করতো।
যখন ddr গুলো আসে তখন এর সাথে bandwidth এ level এ লেখা থাকে যেমন

DDR এর সাথে three three three অর্থাৎ three কে যদি আপনি eight দিয়ে গুণ করেন তাহলে দেখতে পাচ্ছেন ৭০০ MB পার সেকেন্ড।
আপনারা জানেন DDR 2400 বাস 3200 বাস আমাদের মার্কেটে available রয়েছে।

এরকম আরো তথ্য পেতে আমাদের সঙ্গে থাকুন অথবা আপনার মূল্যবান মতামত কমেন্ট এ জানাবেন

BDTwist.Com এ আপনি নতুন হলে আমাদের অন্যান্য টুইস্টগুলো পড়তে থাকুন।

এ ধরনের টুইস্ট নিয়মিত পড়তে চাইলে BDTwist.Com কে Ctrl+D প্রেস করে Bookmark করে রাখুন। 

আমাদের পরবর্তী টুইস্ট পাবলিশ হওয়ার সাথে সাথে পড়তে চাইলে নিছে ই-মেইল দিয়ে সাবস্ক্রাইব করুন। 

এই টুইস্ট ভালো লাগলে বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন।

আপনারা সবাই ভালো থাকবেন
আল্লাহ হাফিজ।

এই নিবন্ধটি উপভোগ করেছেন? আমাদের নিউজলেটারে যোগ দিয়ে অবহিত থাকুন!

মন্তব্য

একটি মন্তব্য পোস্ট করতে আপনাকে অবশ্যই লগ ইন করতে হবে।

সম্পরকিত প্রবন্ধ
About Author

Unable to show biography! Check line number "infinite" to find error.

সাম্প্রতিক লেখাসমূহ
জুন ২১, ২০২০, ৩:৩০ AM - Infinity
এপ্রিল ২৬, ২০২০, ১:০৭ AM - Infinity
এপ্রিল ২১, ২০২০, ১:১৬ AM - Infinity
ট্রেন্ডিং টুইস্ট
মার্চ ২৯, ২০২০, ১:৩৪ PM - Infinity
এপ্রিল ২১, ২০২০, ১:১৬ AM - Infinity